অনার্স ৪র্থ বর্ষের ভাইভা পরীক্ষার সময় ও প্রস্তুতি:২০১৯

2
1062

অনার্স ৪র্থ বর্ষের ভাইভা পরীক্ষার সময়সূচি ও প্রস্তুতী:-



জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮ সালের ৪র্থ বর্ষ অনার্স ব্যবহারিক ও মৌখিক পরীক্ষা সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়েছে। প্রকাশিত সময়সূচী অনুসারে উক্ত পরীক্ষা আগামী ২০/০৬/২০১৯ তারিখ থেকে ২০/০৭/২০১৯ তারিখ পর্যন্ত চলবে।

পরীক্ষার কেন্দ্র তালিকা শীঘ্রই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটের  লিংকের পাশাপাশি এই sahabanews.com এ পাওয়া যাবে। বহিঃপরীক্ষকের নাম ও ঠিকানা বিশ্ববিদ্যালয় হতে পরবর্তীতে জানানো হবে।


যেহেতু এবার ১০০ মার্কের ভাইভা পরীক্ষা হবে সেহেতু ১০০ মার্কের ভাইবা হওয়াতে A+ উঠানো অনেকটাই কষ্টকর হবে। তবে নিম্নলিখিত প্রিপারেশন নিলে, সবচেয়ে ভালোটাই অর্জণ করতে পারবেন ইনশা-আল্লাহ্।


ভাইবার জন্য কি কি পড়বেনঃ


*আপনি যেই বিষয়ে অনার্স করছেন তার সম্পর্কে ধারণা নিবেন।
*অনার্স ৪র্থ বর্ষের পরীক্ষায় যেই ১ মার্কের প্রশ্নগুলো ছিল এগুলো পড়ে যাবেন।
* ৪র্থ বর্ষ পরীক্ষায় যে বিষয়ে ভাল পরীক্ষা দিয়েছেন সেই বিষয় ভাল করে পড়ে যাবেন।
*৪র্থ বর্ষের সবগুলো বিষয়ের নাম ভালোভাবে জেনে নিবেন।

*কলেজের প্রিন্সিপাল,ভাইস প্রিন্সিপাল,ডিপার্টমেন্ট প্রধানের নাম এবং ডিপার্টমেন্টের শিক্ষকদের নামগুলো জেনে রাখবেন।
*রোল,রেজিঃ নাম্বার এবং পূর্বের ফলাফল জিজ্ঞাস করতে পারে।
*যেহেতু এবার ১০০ মার্কে ভাইভা সময় এবং প্রশ্নের পরিমাণ বেশি হতে পারে।

কেমন পোশাক পড়তে হবেঃ


ছেলেদের ফর্মাল ড্রেস পড়ে যেতে হবে, মেয়েদের ক্ষেত্রে শাড়ি,থ্রি পিস,যারা বোরকা পড়েন পড়ে যেতে পারেন মুখ খোলা রাখবেন।

কি কি নিয়ে পরীক্ষা দিতে যেতে হবেঃ


যেহেতু ভাইবাও একটা পরীক্ষা তাই এডমিট,রেজিঃ কার্ড,কলম,ক্যালকুলেটর,স্কেল নিয়ে যেতে পারেন ।

রুমে ঢুকার পূর্বে সালাম দিয়ে ঢুকবেন এবং বসার অনুমতি না দেয়া পর্যন্ত না বসাই উত্তম। বসতে বললে বলতে পারেন (ধন্যবাদ/ Thank you).
বসার সময় ভুলেও চেয়ার টেনে না বসবেন না।


এমন কোন আচরণ করবেন না যাতে শিক্ষক বিরক্ত হয়। প্রশ্নের উত্তর না পারলে সরি বা সরাসরি বলে দিবেন উত্তর মনে পড়ছেনা।

ভাইবা বোর্ডে ৪/৫ জন শিক্ষক থাকতে পারেন। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে অন্য যেকোন কলেজ থেকে একজন শিক্ষক থাকবেন,

যেই কেন্দ্রে পরীক্ষা হবে সেই কলেজের ডিপার্টমেন্ট প্রধান,ডিপার্টমেন্টের ২/৩ জন শিক্ষক,আপনার কলেজের ডিপার্টমেন্ট প্রধান।



এসব জেনে রাখা ভালো
————————————
→ ভাইভা বোর্ডে যাওয়ার সময় ভয় না পাওয়া,
→ উপস্থিত সবাইকে সালাম দেয়া,
→ পারফিউম ব্যবহার না করাই ভালো,
→ ভাইভার সময় প্রশ্নকর্তার সামনে হাসি খুশি থাকা,

– রুমে প্রবেশের সময় জুতার আওয়াজ না করা
(মেয়েরা উঁচু হীল বর্জণ করতে পারেন)
→ প্রশ্ন না পারলে ইচ্ছামত না বলে সরি বলায় উত্তম,
→ উত্তর বলার সময় বডি ল্যাঙ্গুয়েজ না করা,

→ প্রশ্নকর্তার চোখে চোখ রেখে উত্তর দেওয়া,
→ প্রশ্ন কর্তার সাথে খারাপ আচরণ না করা,
→ মুখে মৃদু হাসি রাখা, তবে হাত দিয়ে মুখ না ডাকা।
→নিজেকে প্রফুল্ল রাখা।

→প্রশ্নকর্তা প্রথমে তোমাকে সকল বিষয় হতে প্রশ্ন করবেন, উত্তর বলতে না পারলে তোমাকে প্রশ্নকর্তা প্রশ্ন করবেন তুমি ফাইনাল পরীক্ষায় কোন বিষয়ে ভালো দিয়েছ। সেখান থেকেই তোমাকে প্রশ্ন করবেন।

#বের হওয়ার সময় মৃদু হাসিতে সালাম দিয়ে বের হওয়া।

মনে রাখবেন, ভাইভা এমন একটা পরীক্ষা যেখানে আপনার উত্তর কতোটা সঠিক তার চেয়ে বেশি প্রাধান্য দেয়া হয় আপনি কতটা স্বাচ্ছন্দে উত্তরকে উপস্থাপন করছেন।

HOPE FOR THE BEST


©সাহাবা নিউজ.কম

2 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here